• বৃহস্পতিবার, ০৭ জুলাই ২০২২, ২৩ আষাঢ় ১৪২৯  |   ৩৩ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

লিভারপুলের হারে মানে-সালাহদের দুষলেন ওয়েঙ্গার

  ক্রীড়া ডেস্ক

২৯ মে ২০২২, ১৭:১১
মোহামেদ সালাহ (বাঁয়ে) ও সাদিও মানে (ডানে) (ছবি : সংগৃহীত)

রিয়ালের গোলপোস্ট অভিমুখে আক্রমণের পসরা সাজিয়েছিলেন সাদিও মানে, মোহামেদ সালাহরা। তবে অনেক চেষ্টা করেও রিয়াল গোলরক্ষক থিবো কোর্তয়ার প্রাচীর ভেদ করতে পারেননি তারা। তাই হারের তীব্র বেদনা নিয়ে উয়েফা চ্যাম্পিয়ন্স লিগ শেষ করতে হয়েছে লিভারপুলকে। আর্সেনালের সাবেক কোচ আর্সেন ওয়েঙ্গার মনে করেন, ফাইনালে যথেষ্ট আত্মবিশ্বাসী ছিলেন না সালাহ ও মানে। আর সে কারণেই হেরেছে লিভারপুল।

ফাইনালের প্রায় পুরোটা সময় আক্রমণে দাপট দেখায় ইংলিশ ক্লাব লিভারপুল। ইয়ুর্গেন ক্লপের শিষ্যদের সমস্ত প্রচেষ্টা অবশ্য তাল হারিয়ে ফেলে কোর্তোয়া নামক নিরেট দেয়ালের সামনে। মিশরীয় ফরোয়ার্ড সালাহ একাই লক্ষ্যে রেখেছিলেন ছয়টি শট। কিন্তু রিয়ালের গোলরক্ষককে পরাস্ত করতে পারেননি। ফলে চ্যাম্পিয়ন্স লিগের ২০১৮ সালের ফাইনালে রিয়ালের কাছে আগের হারের প্রতিশোধ নেওয়ার স্বপ্ন সালাহর থেকে গেছে অধরা।

অন্যদিকে, ম্যাচের ২১তম মিনিটে প্রায় গোল পেয়েই গিয়েছিলেন মানে। তবে কোর্তোয়া ও ভাগ্যের কল্যাণে বেঁচে যায় রিয়াল। ডি-বক্সের বাইরে থেকে সেনেগালিজ ফরোয়ার্ড মানের জোরালো শট কোনোক্রমে আটকে দেন কোর্তোয়া। তার হাতে লেগে বল বাধা পায় পোস্টে।

গত সপ্তাহে ম্যানসিটির কাছে প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা হারিয়েছে লিভারপুল। মূলত লিগ জিততে না পারায় সালাহ ও মানের আত্মবিশ্বাসে কিছুটা চিড় ধরে গিয়েছিল বলে মনে করছেন ওয়েঙ্গার, ‘এই ম্যাচ দেখার পর আমি ভাবছি, গত সপ্তাহে মৌসুমের শেষ ম্যাচে (প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা) জিততে না পারার হতাশা তাদের আত্মবিশ্বাসে কোনো ঘাটতি তৈরি করেছে কিনা। সালাহ ও মানে- যারা পার্থক্য গড়ে দিতে পারে, তাদের চেনা সজীবতা ছিল না বলে অনুভব করেছি।’

সালাহ ও মানের দিকে অভিযোগের আঙুল তুললেও দুর্দান্ত সব সেভ করা কোর্তোয়াকে কৃতিত্ব দিয়েছেন ওয়েঙ্গার, ‘সব মিলিয়ে তারা (লিভারপুল) পিছিয়ে ছিল। আমাদের সততার সঙ্গে বলতে হবে, এটা হয়েছে কোর্তোয়ার কারণে। একটা সময়ে আমার মনে হয়েছে, যদি লিভারপুল স্কোরলাইন ১-১ করতে পারে, তাহলে তারা ঘুরে দাঁড়িয়ে ম্যাচ জিততে পারবে। কিন্তু তারা সেই বিশেষ মুহূর্ত খুঁজে পায়নি, যখন তারা সুযোগগুলোকে পূর্ণতা দিতে পারত। এর পেছনে সবচেয়ে বড় কারণ হলো কোর্তোয়া।’

ওডি/কেএ

  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

সম্পাদক: মো: তাজবীর হোসাইন  

সহযোগী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118241, +8801907484702 

ই-মেইল: inbox.odhikar@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড