• বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১  |   ৩০ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

‘সবার মাঝে রত্নভাণ্ডার আছে সেটাকে আলোকিত করতে হবে’

  পাবনা প্রতিনিধি

২১ মার্চ ২০২৩, ১০:৩৫
‘সবার মাঝে রত্নভাণ্ডার আছে সেটাকে আলোকিত করতে হবে’
বক্তব্য রাখছেন চীফ অব জেনারেল স্টাফ আর্মি হেডকোয়ার্টারস ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের সাবেক উপাচার্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান (ছবি : অধিকার)

চীফ অব জেনারেল স্টাফ আর্মি হেডকোয়ার্টারস ও বাংলাদেশ ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালসের সাবেক উপাচার্য লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান বলেছেন, শিক্ষা মানুষকে আলোকিত করে, তথ্য মানুষকে সমৃদ্ধ করে। আমাদের সবার মাঝে রত্নভাণ্ডার আছে, আলো আছে। সেটাকে আলোকিত করতে হবে। বিহঙ্গের মতো নিজেকে মেলে ধরতে হবে।

গতকাল সোমবার (২০ মার্চ) বেলা সাড়ে ১১টার দিকে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয় আয়োজিত এক অনুষ্ঠানে ইউনিভার্সিটি অব প্রফেশনালস এর সাবেক উপাচার্য হিসেবে তার সফলতার প্রশাসনিক, একাডেমিক এবং শৃঙ্খলাবোধের অভিজ্ঞতা ছাত্রছাত্রী ও শিক্ষকদের বিনিময় করতে গিয়ে তিনি এসব কথা বলেন।

লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান বলেন, সবার মধ্যে অগ্নির শক্তি আছে। সেই শক্তিটাকে জানতে হবে। কীভাবে এই আলো জ্বালাবো সেটা বুঝতে হবে, জানতে হবে। মনকে বিকশিত করতে হবে। দায়িত্ববান, সময়ানুবর্তী হতে হবে। ছাত্র শিক্ষক ও অভিভাবকদের মধ্যে সম্পর্ক স্থাপন করতে হবে। শিক্ষার্থীদের পাশে দাঁড়াতে হবে।

তিনি আরও বলেন, একজন শিশু যাতে শৃঙ্খলার মধ্যে সুন্দরভাবে বেড়ে উঠে, সেই পরিবেশ আমাদের সৃষ্টি করতে হবে। মূল্যবোধ সম্পন্ন পরিপূর্ণ মানুষ হতে হবে। মূল্যবোধ সম্পন্ন মানুষ পরিবার দেশ জাতিকে এগিয়ে নিতে পারে। সার্টিফিকেট সম্পন্ন না হয়ে ভালোভাবে জেনে শিক্ষার্থীরা যেন বের হতে পারে। বাংলাদেশে অনেক মেধাবী আছে, তাদের খুঁজে বের করতে হবে। তরুণরা নিজেরাই নিজেদের নেতৃত্ব দিতে পারে। তরুণদের চাকরী না করে উদ্যোক্তা হতে হবে। নিজেরা নতুন কিছু তৈরি করবে, এই স্বপ্নও দেখবে।

বঙ্গবন্ধুর সঙ্গে তার স্মৃতির কথা উল্লেখ করে তিনি বলেন, আমি যখন শিশু, বঙ্গবন্ধু আমার কপালে চুমু দিয়েছিলেন। আমি সেই স্মৃতি ধারণ করি, লালন করি। সেটা আমার জীবনের শ্রেষ্ঠ স্মৃতি। পাবনায় অনেক বিখ্যাত মানুষ, পণ্ডিত জন্ম নিয়েছেন। পাবনা গর্বের জায়গা। নতুন মহামান্য রাষ্ট্রপতি পাবনার মানুষ। এই বিশ্ববিদ্যালয় এগিয়ে যাচ্ছে। সারাদেশে উদাহরণ হতে যাচ্ছে পাবনা বিজ্ঞান ও প্রযুক্তি বিশ্ববিদ্যালয়। এখানকার শিক্ষার পরিবেশ খুব ভালো।

সভাপতির বক্তব্যে উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বলেন, সমাজকে এগিয়ে নেয়ার জন্য সম্পদ খুঁজে বের করতে হবে। ভিতরের আলোর প্রজ্বলন ঘটাতে হবে। নতুন নতুন ভাবনা তৈরি করতে হবে। আমাদের মাঝে আন্তরিকতা, ভালোবাসা আছে। সম্মিলিতভাবে কাজ করছি। জীবন থেকে শিক্ষা নিয়ে এগিয়ে যেতে হবে। আমাদের ভালো কাজের সুবাতাসের ঘ্রাণ সবাই পাবে। আমরা বিশ্ববিদ্যালয়কে ভালোবাসি। সবাই নিজ নিজ দায়িত্ব পালন করছি। সম্মিলিতভাবে এগিয়ে যাচ্ছি।

আরও বক্তব্য দেন উপ-উপাচার্য অধ্যাপক ড. এস এম মোস্তফা কামাল খান, কোষাধ্যক্ষ অধ্যাপক কে এম সালাহ উদ্দীন। অনুষ্ঠানের শুরুতে এক মিনিট নীরবতা পালন করা হয়। এর অতিথিদের ফুলেল শুভেচ্ছা ও ক্রেস্ট দিয়ে সম্মান জানানো হয়।

এর আগে সকাল দশটায় ক্যাম্পাসে পৌঁছে লেফটেন্যান্ট জেনারেল আতাউল হাকিম সারওয়ার হাসান জাতীয় সঙ্গীতের সঙ্গে জাতীয় পতাকা এবং উপাচার্য অধ্যাপক ড. হাফিজা খাতুন বিশ্ববিদ্যালয়ের পতাকা উত্তোলন করেন। এ সময় গার্ড অব অনার দেওয়া হয়। অনুষ্ঠানটি সঞ্চালনা করেন ড. মো. হাবিবুল্লাহ।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.odhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: inbox.odhikar@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড