• বুধবার, ২৪ এপ্রিল ২০২৪, ১১ বৈশাখ ১৪৩১  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

অলি কোথায়? বলে বিপাকে ইবি ভিসি 

  ইবি প্রতিনিধি

১০ মার্চ ২০২৩, ১০:৫৬
অলি কোথায়? বলে বিপাকে ইবি ভিসি 
ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয় (ফাইল ছবি)

ইসলামী বিশ্ববিদ্যালয়ের (ইবি) উপাচার্য অধ্যাপক ড. শেখ আবদুস সালামের কণ্ঠের সদৃশ বেশ কিছু অডিয়ো সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়েছে। এ ঘটনার পরে ক্যাম্পাস জুড়ে নানা আলোচনা সমালোচনার সৃষ্টি হয়েছে। উপাচার্যকে অবাঞ্ছিত ঘোষণা করে অপসারণের দাবিতে কার্যালয়ে তিন কার্যদিবস ধরে কার্যালয়ে তালা ঝুলিয়ে আন্দোলন করেছে চাকুরী প্রত্যাশী ছাত্রলীগের সাবেক নেতাকর্মীরা।

আন্দোলনের সময় উপাচার্য বিরোধী বিভিন্ন স্লোগানসহ মাইকে ফাঁস হওয়া অডিয়ো ক্লিপ বাজাতে দেখা গেছে। এছাড়াও ভর্তির যোগ্যতা অর্জন না করতে পারা ১৫ থেকে ১৭ জন শিক্ষার্থীকে ভর্তির দাবিসহ ৭ দফা দাবিতে স্মারকলিপি দিয়েছেন সহায়ক কর্মচারী সমিতি। এমনকি বিভিন্নভাবে বিভিন্ন জন উপাচার্যের কাছে অনৈতিক দাবি করছেন বলে জানা গেছে।

এ দিকে এ ঘটনার পর অনিবার্য কারণ দেখিয়ে পাঁচটি নিয়োগ বোর্ড স্থগিত করা হয়েছে।

অডিয়ো ফাঁসের ঘটনায় বিশ্ববিদ্যালয়ের প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরাম বাংলা বিভাগের অধ্যাপক ড. মো. রবিউল হোসেনকে আহবায়ক করে ৩ সদস্যের একটি তদন্ত কমিটি গঠন করেছে।

এর আগে উপাচার্যের অবস্থান জানতে চেয়ে বিবৃতি দিয়েছিলেন বিশ্ববিদ্যালয় শিক্ষক সমিতি ও প্রগতিশীল শিক্ষক সংগঠন শাপলা ফোরাম। শিক্ষক সমিতির বিবৃতিতে বলা হয়েছিল, উপাচার্যের কথোপকথন শিক্ষক সমিতির দৃষ্টিগোচর হয়েছে। এতে শিক্ষক সমিতি হতবাক এবং বিস্মিত। এছাড়াও এ ব্যাপারে প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছে সংগঠন দুইটি।

জানা যায়, সর্বপ্রথম 'ফারাহ জেবিন' নামের একটি ফেসবুক আইডি থেকে উপাচার্যের কণ্ঠের সদৃশ একটি কথোপকথন ফাঁস হয়। পরে একই আইডি থেকে আরও ২টি অডিয়ো ছাড়া হয়। এ সময় উপাচার্যের সাথে কথা বলা ব্যক্তি অলিউল রহমান অলি বলে পোস্টের ক্যাপশনে লেখা হয়। তবে এ সময় অন্য পক্ষের কণ্ঠ শোনা যায়নি।

উপাচার্যের ফাঁস হওয়া ৬ মিনিটের প্রথম অডিয়োতে বলতে প্রথমেই বলতে শোনা যায়, অলি কোথায়?

এছাড়াও নিয়োগের প্রশ্ন ও উত্তর সম্পর্কে বিভিন্ন আলোচনা সহ অর্থের বিনিময়ে হলেও আরও দুজন প্রার্থীকে আবেদন করাতে কথা বলতে শোনা যায়।

অন্য দিকে 'ফারাহ জেবিন' আইডির পর 'মিসেস সালাম' ও 'আলবিদা ' নামের আরও দুইটি পৃথক আইডি থেকে ৫ টি অডিও ফাঁস হয়েছে। সবমিলিয়ে দুইটি আইডি উপাচার্যের কণ্ঠের সদৃশ ৮টি অডিয়ো ফাঁস হওয়ার ঘটনা ঘটেছে।

এ ঘটনায় লুকায়িত অডিয়ো ডিভাইস আছে কিনা সেটার খোঁজে কার্যালয়ে ও বাসভবনে তল্লাশি করা হয়েছে। তল্লাশির সময় ইবি প্রশাসনের পাশাপাশি থানা ও গোয়েন্দা সংস্থার সদস্যরা উপস্থিত ছিলেন। এছাড়াও ইবি থানায় বিশ্ববিদ্যালয় প্রশাসনের পক্ষ থেকে একটি সাধারণ ডায়েরি করা হয়েছে।

আপনার ক্যাম্পাসের নানা ঘটনা, আয়োজন/ অসন্তোষ সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.odhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: inbox.odhikar@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড