• রোববার, ১৯ মে ২০২৪, ৫ জ্যৈষ্ঠ ১৪৩১  |   ৩২ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

কেসিসি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী মুশফিকের ইশতেহার ঘোষণা 

প্রখর রোদ আর ভ্যাপসা গরম দমাতে পারছে না প্রার্থীদের

  শেখ শান্ত ইসলাম, খুলনা

০৭ জুন ২০২৩, ১৭:২২
কেসিসি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী মুশফিকের ইশতেহার ঘোষণা 
নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করছেন মেয়র প্রার্থী মুশফিক (ছবি : অধিকার)

প্রখর রোদ আর ভ্যাপসা গরম দমাতে পারছে না প্রার্থীদের। আবহাওয়া অফিসের তথ্য মতে তাপমাত্রা ৩৯ ডিগ্রী সেলসিয়াসের ঘরে। তার উপর বাতাসের আদ্রতা অনেকটাই বেশী। এতে করে শরীরে গরমের অনুভূতি প্রচণ্ড রকমের। বাইরে কিংবা ঘরে থাকলেও শরীর থেকে ঘাম শুকাচ্ছে না।

এর মধ্যেই চলছে খুলনা সিটি করপোরেশন (কেসিসি) নির্বাচনে অংশ নেওয়া প্রার্থীদের জনসংযোগ। পাঁচজন মেয়র প্রার্থী দাপিয়ে বেড়াচ্ছে ৩১টি ওয়ার্ড জুড়ে। আর ১৭৫ জন কাউন্সিলর প্রার্থী বারংবার যাচ্ছেন ভোটারদের কাছে। এছাড়া স্বতন্ত্র মেয়র প্রার্থী শফিকুর রহমান মুশফিক মাদক মুক্ত নগরী গঠন ও হোল্ডিং ট্যাক্স বৃদ্ধি না করে নাগরিক সেবার মান বাড়াতে নানা প্রতিশ্রুতি দিয়ে তার নির্বাচনি ইশতেহার ঘোষণা করেছেন।

আওয়ামী লীগ :

আওয়ামী লীগ মনোনীত মেয়র প্রার্থী তালুকদার আবদুল খালেক আধুনিক ও পরিচ্ছন্ন খুলনা গড়তে পুনরায় নগরবাসীর সমর্থন চেয়ে বলেন, নতুন কোন হোল্ডিং ট্যাক্স না বাড়িয়ে নাগরিক সেবার মান উন্নত করা হবে। নতুন প্রজন্মের বাসযোগ্য একটি আধুনিক মহানগরী গড়তে বিশেষজ্ঞদের পরামর্শ নিয়ে কাজ করা হবে।

তিনি বলেছেন, ভোট প্রত্যেকের গণতান্ত্রিক অধিকার। ভোট একটি পবিত্র আমানত। গণতন্ত্রের ধারা অব্যাহত রাখতে প্রত্যেক নাগরিককে ভোট কেন্দ্রে গিয়ে নিজ পছন্দের প্রার্থীকে ভোট দেওয়ার আহবান জানান মেয়র প্রার্থী।

তিনি বুধবার সকালে নগরীর হাদিস পার্কে প্রাতঃ ভ্রমণকারী ক্লাবগুলোর সাথে মতবিনিময় এবং ২৮ ও ২৯নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন স্থানে গণসংযোগ ও সুধীজনদের সাথে মতবিনিময়কালে একথা বলেন। এসময় মহানগর আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক বাবুল রানা, আওয়ামী লীগ নেতা নেতা বীর মুক্তিযোদ্ধা মকবুল হোসেন মিন্টু, ফকির সাইফুল ইসলাম, আবুল কালম আজাদ, জামাল উদ্দিন বাচ্চু, বাদল সরকার, আজমসহ দলের বিপুল সংখ্যক নেতাকর্মী উপস্থিত ছিলেন। পরে তিনি মহিরবাড়ী খালপাড়, ফরিদ মোল্লা মোড় টুটপাড়া, ট্যাংব রোড, হাজী মহসিন রোড, রূপসাসহ বিভিন্ন এলাকায় গণ সংযোগ করেন।

এ সময় সাংবাদিকদের তিনি বলেন, চলমান উন্নয়ন কাজের ধারাবাহিকতা রক্ষা ও স্মার্ট নগরী গড়তে ভোটাররা আবার আমাকে থোট দেবে।

স্বতন্ত্র :

অপর দিকে বিভিন্ন শ্রেণি-পেশার মানুষের প্রতিনিধিত্বের মাধ্যমে নাগরিক পরামর্শক কমিটি গঠন, তিন মাস পর পর মুখোমুখি অনুষ্ঠান, হোল্ডিং ট্যাক্স বৃদ্ধি না করার প্রতিশ্রুতি দিয়ে ইশতেহার দিলেন খুলনা সিটি নির্বাচনে মেয়র প্রার্থী এস এম শফিকুর রহমান মুশফিক।

বুধবার দুপুরে খুলনা প্রেসক্লাবে এক সংবাদ সম্মেলনে তিনি এ ইশতেহার ঘোষণা করেন। মেয়র প্রার্থী মাদক মুক্ত নগরী গঠন, আধুনিক আর্ট গ্যালারি স্থাপন, রিকশা, ইজিবাইক, ক্ষুদ্র যানবাহনের লাইসেন্স সহজতর করার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন।

তিনি বলেন, কেসিসির সীমানা বৃদ্ধি, সুইমিংপুল নির্মাণ, নতুন নতুন মার্কেট নির্মাণ, প্রশাসনিক কর্মকাণ্ড বিকেন্দ্রীকরণ করা হবে। মুশফিক ট্যাক্স হোল্ডারদের স্মার্টকার্ড প্রদান, শ্রমিক-কর্মচারীদের ৯০ মাসের গ্রাচ্যুইট ফাল্ড গঠন, এসডিজি নীতিমালা অনুসরণ ও উন্নয়ন সংস্থাগুলোর সাথে সম্পর্ক স্থাপন করা হবে। সিটি করপোরেশনের প্লানিং শাখায় দক্ষ জনবল নিয়োগ, নারী, শিশু ও প্রতিবন্ধী বান্ধব নগরী গঠন, সাম্প্রদায়িক সম্প্রীতি রক্ষায় পদক্ষেপ নেওয়া হবে।

এ সময় স্বতন্ত্র প্রার্থী নির্বাচনি পরিবেশে সন্তোষ প্রকাশ করে বলেন, সাধারণ মানুষ এখনো নির্বাচন নিয়ে সংশয়ে আছেন। তবে পরিবেশ ভাল। আমি চাই মানুষ ভোট কেন্দ্রে আসুক। তাদের যাকে পছন্দ, তাকে ভোট প্রদান করুক। দয়া করে রাষ্ট্রের নির্বাচন প্রক্রিয়া ও এর স্বপ্নকে ব্যর্থতায় পরিগণিত হতে দেবেন না।

জাতীয় পার্টি :

জাতীয় পার্টির মেয়র প্রার্থী শফিকুল ইসলাম মধু বলেছেন, ইশতেহারের নামে বড় ফর্দ দিয়ে লাভ কি কথায় কাজে মিল থাকতে হবে। বুধবার সকাল ১০টায় খুলনা মহানগরীর ময়লাপোতা মোড়, ডালমীল মোড়, পৈপাড়া, বানরগাতী বাজারসহ ১৯, ২৫ ও ২৬নং ওয়ার্ডের বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও পথসভায় নৌকা প্রতীকের প্রার্থী সম্পর্কে এসব খতা বলেন।

তিনি বলেছেন, খুলনা সিটিতে বসবাসরত সাধারণ নাগরিকদের সেবা দিতে ব্যর্থ হয়েছেন তিনি। নির্বাচনের সময় বড় একটি ফর্দ ধরি দেয় ইশতেহারের নামে। ইশতেহার লেখা থাকে ৪০-৫০টা কাজের অথচ নির্বাচনের পরে দুটো কা শেষে হয় না। তিনি তো বেশ কয়েকবার নির্বাচন করে মেয়র হয়েছেন তিনি কি এমন ইশতেহার দেওয়া কাজ করেছনে? আমি আগামীকাল (বৃহস্পতিবার) ইশতেহার দিব। আমার ইশতেহার প্রথমত লেখা থাকবে মিষ্টি পাণি, মশক নিধন ও জলাবদ্ধতা দূরীকরণ। আমার ইশতেহারে যে কাজের কথা উল্লেখ করা হবে আপনাদের একটি ভোটরে মাধ্যমে আমি যদি মেয়র নির্বাচিত হই তাহলে সে কাজগুলো অবশ্যই অবশ্যই আমি সম্পন্ন করব।

এ সময় উপস্থিতি ছিলেন- কেন্দ্রীয় ধর্ম বিষয়ক সম্পাদক মাওলানা আল জুবায়ের, নগর জাতীয় পার্টির সভাপতি অ্যাডভোকেট মহানন্দ সরকার, সাধারণ সম্পাদক আব্দুল্লাহ আল মামুন ও জেলার সাধারণ সম্পাদক এম হাদিউজ্জামানসহ শেখ মো. নাজমুল কবির সাদী, গাউছুল আজম, আশফাকুল ইসলাম সেলিম, তৌমুর হোসেন শাহিন, প্রিন্স হোসেন কালু, মোস্তফা কামাল রিপন, কালা চান, নেয়ামত খান, অপূর্ব দত্ত নেকু, মাসুদ হাসান, খান, কামরুজ্জামান রজব, প্রমুখ।

ইসলামী আন্দোলন :

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ মনোনীত হাতপাখার মেয়র প্রার্থী হাফেজ মাওলানা আব্দুল আউয়াল বলেন, মানুষের জানমালের নিরাপত্তা আজ মারাত্মক হুমকির মুখে। এ চরম দুরবস্থার কারণ এবং তার সমাধান আমাদের উদঘাটন করতে হবে। হাজার হাজার কোটি টাকা বাজেট হওয়া সত্ত্বেও সিটি কর্পোরেশনে কাঙ্ক্ষিত মানের জননিরাপত্তা নিশ্চিত করা হলো না কেন? কাম্যমানের নাগরিক সুবিধা কেন নিশ্চিত হলো না এ জিজ্ঞাসা সকল নাগরিকের। বারংবার মুখরোচক শ্লোগানের ধোঁকায় আমরা আর কতবার নিপতিত হবো। এ থেকে আমাদের সরে আসতে হবে। আমি খুলনা সিটি করপোরেশনে নির্বাচিত হলে এলাকা ভিত্তিক জননিরাপত্তা নিশ্চিত করণে কাজ করবো।

বুধবার সকালে নগরীর ২১ ও ২৩ এবং বিকালে ১৪ ও ১৬নং ওয়ার্ডের নগর ভবন, কেসিসি মার্কেট, পোস্ট অফিস, পিকচার প্যালেস, নিক্সন মার্কেট, বয়রা বাজার, রেজিস্ট্রি অফিসসহ বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ ও পথসভায় তিনি এ কথা বলেন।

এ সময় উপস্থিত ছিলেন- ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশের প্রেসিডিয়াম সদস্য অধ্যাপক মাহবুবুর রহমান, সহকারী মহাসচিব মাওলানা ইমতিয়াজ আলম দফতর সম্পাদক লোকমান হোসেন জাফরি, ইসলামী শ্রমিক আন্দোলন বাংলাদেশের সভাপতি আবু তাহের, ইসলামী ছাত্র আন্দোলন বাংলাদেশের সাংগঠনিক সম্পাদক মুহা. সিরাজুল ইসলাম।

জাকের পার্টি :

জাকের পার্টির গোলাপ ফুল প্রতীকের প্রার্থী এস এম সাব্বির হোসেন সকল থেকে রাত পর্যন্ত বিভিন্ন এলাকায় গণসংযোগ করেছেন। এ সময় তিনি খুলনা সিটিকে নতুনভাবে সাজানোর কথা বলে ভোট চার ভোটারদের কাছে।

তিনি বলেন, আমি নির্বাচিত হলে খুলনা হবে বাংলাদেশের সেরা দৃষ্টিনন্দন ও উন্নত নগরী।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.odhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: inbox.odhikar@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড