• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

টেকনাফে ইসমাইল হত্যা মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন নির্দোষ ব্যক্তি

  মিজানুর রহমান মিজান, টেকনাফ (কক্সবাজার)

০১ অক্টোবর ২০২২, ১৬:৫০
টেকনাফে ইসমাইল হত্যা মামলায় ফেঁসে যাচ্ছেন নির্দোষ ব্যক্তি
গ্রেফতারকৃত আসামি (ফাইল ছবি)

কক্সবাজারের টেকনাফ উপজেলায় সাবরাং ইউপির শাহ্পরীর দ্বীপে ছুরিকাঘাতে নিহত ইসমাইল হত্যা মামলায় একই এলাকার আবু শামার পুত্র মোহাম্মদ ফিরোজকে ষড়যন্ত্রমূলকভাবে মামলায় অন্তর্ভুক্ত করা হয়েছে বলে অভিযোগ উঠেছে। শুক্রবার (৩০ সেপ্টেম্বর) সন্ধ্যায় উক্ত মামলা থেকে তার নাম বাদ দেয়ার জন্য এক ভিডিয়ো বার্তায় গণমাধ্যমকর্মীদের জানান তিনি।

তিনি বলেন, আমি একজন মাছ ব‍্যবসায়ী, উক্ত ঘটনার সময় মাছের খলায় কাজে ব্যস্ত ছিলাম এবং সেই ঘটনার বিষয়ে কোনো কিছুই আমি অবগত নই। কিন্তু নিহত ইসমাইলের চাচা হালিমের সাথে আমার পারিবারিকভাবে বিরোধ ছিল, সে বিভিন্ন সময় আমাকে মারধর ও মিথ্যা মামলায় ফাঁসানোর হুমকি ধমকি দিয়ে আসত। এ ঘটনায় পূর্ব শত্রুতার জেরে হয়রানি করার কু উদ্দেশ্যে ষড়যন্ত্র করে নিহত ইসমাইলের পরিবারকে প্রলোভন দেখিয়ে অর্থের বিনিময়ে আমাকে মামলায় আসামি করে।

তিনি আরও বলেন, আমি চাই যারা ইসমাইলকে হত্যা করেছে তাদের আইনের আওতায় আনা হোক; পাশাপাশি ঘটনার সুস্থ তদন্ত করে আসল অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তির ব্যবস্থা করতে এবং আমার বিষয়ে এলাকায় যাচায় বাচায় ও তদন্ত করে যদি আমি না থাকি তাহলে উক্ত মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার জন্য প্রশাসনের প্রতি বিনীতভাবে অনুরোধ জানাচ্ছি।

নিহত ইসমাইলের আপন মামা মোহাম্মদ আমিন বলেন, ফিরোজ সম্পূর্ণ নির্দোষ, সে এ ঘটনায় কোনোভাবেই জড়িত নেই। ঘটনার পরের দিন নিহত ইসমাইলের মা আমার আপন বোনের সাথে মামলার বিষয়ে আলাপকালে হালিম এর মুখে ফিরোজকে মামলায় আসামি করার কথা শুনে মামলায় নির্দোষ ব্যক্তিদের না জড়াতে অনুরোধ করি কিন্তু হালিম আরও ক্ষুদ্ধ হয়ে ষড়যন্ত্রমূলক নির্দোষ ফিরোজকে জড়িয়েছে। এটি খুবই দুঃখজনক। মামলায় আসল অপরাধীদের সর্বোচ্চ শাস্তি ও নির্দোষ ব্যক্তিদের মামলা থেকে অব্যাহতি দেয়ার জন্য প্রশাসনের কাছে অনুরোধ জানাচ্ছি।

স্থানীয় ইউপি মেম্বার রেজাউল করিম রেজু বলেন, আমি ঘটনা তদন্ত করেছি, এলাকার একজন জনপ্রতিনিধি হিসেবে যতটুকু তথ্য পেয়েছি ইসমাইল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ফিরোজ কোনোভাবেই জড়িত নেই। ওনাকে হয়রানি করতে একটি মহল উক্ত মামলায় জড়ানোর চেষ্টা করছে।

টেকনাফ মডেল থানার ওসি তদন্ত নাছির উদ্দিন চৌধুরী জানান, ইসমাইল হত্যাকাণ্ডের ঘটনায় ছয়জনের বিরুদ্ধে মামলা করেছে তার মা। এর মধ্যে একজন গ্রেফতার হয়েছে। তবে কেউ যদি ঘটনার সাথে জড়িত না থেকে মামলায় আসামি হয় সেটি আমরা খতিয়ে দেখব।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.odhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: odhikaronline@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড