• বৃহস্পতিবার, ০৮ ডিসেম্বর ২০২২, ২৩ অগ্রহায়ণ ১৪২৯  |   ২৯ °সে
  • বেটা ভার্সন
sonargao

সাবেক জাতীয় এ্যাথলেটারকে খুনের পর এখনো আসামিরা ধরাছোঁয়ার বাহিরে

  তাপস কুমার বিশ্বাস, ফুলতলা (খুলনা)

০১ অক্টোবর ২০২২, ১৫:৫৭
সাবেক জাতীয় এ্যাথলেটারকে খুনের পর এখনো আসামিরা ধরাছোঁয়ার বাহিরে
প্রয়াত সাবেক জাতীয় এ্যাথলেটার এম এম কামরুজ্জামান (ফাইল ছবি)

স্বর্ণপদক জয়ী সাবেক জাতীয় এ্যাথলেটার ও গাড়াখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের সভাপতি এম এম কামরুজ্জামান হত্যা মামলার ৪ দিন অতিবাহিত হলেও এজাহারভুক্ত আসামিদের আটক করতে পারেনি পুলিশ।

এ ব্যাপারে মামলার বাদী নিহতের বড় ভাই মো. আনারুল ইসলাম মোল্যা কালু ঘটনার প্রতিবাদ ও আসামিদের আটকের দাবিতে বিভিন্ন কর্মসূচি দিয়েছেন।

ফুলতলা থানায় দায়েরকৃত মামলায় (নং-২০/১৫১, তারিখ-২৭/০৯/২২ইং) সাতজনের নাম উল্লেখসহ অজ্ঞাতসহ আরও কয়েক ব্যক্তিকে আসামি করা হয়। এজাহার নামীয় আসামিরা হলেন- উপজেলা আওয়ামী লীগের সাবেক সহ সভাপতি ও বিপিজিডি মাধ্যমিক বিদ্যালয়ের প্রধান শিক্ষক মো. মোশাররফ হোসেন মোড়ল (৫৭), মৎস্য ঘের ব্যবসায়ী সুমন মোড়ল (৪৫), গাড়াখোলা দাখিল মাদরাসার শিক্ষক ও ঘের ব্যবসায়ী ফিরোজ মোড়ল (৪৫) ও তার ভাই একই মাদ্রাসার শিক্ষক আবুল কালাম আজাদ মোড়ল (৪৮), হাফিজুর রহমান বিশ্বাস (৩৫), গাড়াখোলা সরকারি প্রাথমিক বিদ্যালয়ের শিক্ষক সানোয়ার হোসেন মোড়ল (৫২) ও আবাসিক হোটেল মালিক ও ঘের ব্যবসায়ী মুকুল মোড়ল (৪২)।

এজাহারভুক্ত সব আসামির বাড়ি গাড়াখোলা গ্রামে এবং জমিজমা সংক্রান্ত বিরোধের জের ধরে পূর্ব পরিকল্পিতভাবে কামরুজ্জামানকে হত্যা করা হয় বলে অভিযোগে উল্লেখ করা হয়। হত্যা মামলার ৪ দিন অতিবাহিত হলেও কোনো আসামি গ্রেফতার না হওয়ায় মামলার বাদী ও নিহতের পরিবার হতাশা ব্যক্ত করেছেন। ঘটনার প্রতিবাদ ও আসামিদের আটকের দাবিতে সাংবাদিক সম্মেলন, বিভিন্ন দপ্তরে স্মারকলিপি পেশ ও মানববন্ধনের কর্মসূচি পালন করা হবে বলে বাদী মো. আনারুল ইসলাম মোল্যা কালু জানিয়েছেন।

মামলার তদন্তকারী কর্মকর্তা ও ফুলতলা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. ইলিয়াস তালুকদার বলেন, আসামিদের গ্রেফতারে পুলিশ চেষ্টা করছে। দ্রুতই তাদের গ্রেফতার করে আইনের আওতায় আনা হবে।

উল্লেখ্য, গত ৩১ আগস্ট রাত তিনটায় গাড়াখোলার পোড়া বটতলা এলাকা থেকে এম এম কামরুজ্জামানকে অস্ত্রের মুখে আসামিরা জিম্মি করে ভিক-টিমের নবনির্মিত ভবনে নিয়ে যায়। সেখানে পূর্ব থেকে ওত পেতে থাকা আসামীরা তার মুখ বেঁধে দেশীয় অস্ত্র দিয়ে মাথা ও চোখসহ শরীরের বিভিন্ন স্থানে আঘাত করে ফেলে রেখে যায়। পরে ঢাকার একটি হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় গত ১১ সেপ্টেম্বর রাত ১টার দিকে তার মৃত্যু হয়।

আপনার চারপাশে ঘটে যাওয়া নানা খবর, খবরের পিছনের খবর সরাসরি দৈনিক অধিকারকে জানাতে ই-মেইল করুন- inbox.odhikar@gmail.com আপনার পাঠানো তথ্যের বস্তুনিষ্ঠতা যাচাই করে আমরা তা প্রকাশ করব।
  • সর্বশেষ
  • সর্বাধিক পঠিত

নির্বাহী সম্পাদক: গোলাম যাকারিয়া

 

সম্পাদকীয় কার্যালয় 

১৪৭/ডি, গ্রীন রোড, ঢাকা-১২১৫।

যোগাযোগ: 02-48118243, +8801907484702 

ই-মেইল: odhikaronline@gmail.com

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, অডিও, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার বেআইনি।

Developed by : অধিকার মিডিয়া লিমিটেড